দিব্যি কাব্যিতে শম্পা সাহা

তৃষ্ণা

দীর্ঘদিন জলস্পর্শ করিনি
অবারিত তৃষ্ণা ছুঁয়ে ছুঁয়ে যায় সকালের রোদ
সোনালী আলোর ঝালরে রুমালে এলোমেলো
সানাইয়ের সুর
ভোরের সূর্যের ভাবনায় ঊষরতা থাকতে নেই
জীবন নদীর চলা,স্থবিরতা থাকতে নেই
নূড়ি পাথরের ঠোকাঠুকিতে চকমকি জ্বলে ওঠে রোজ
আকন্ঠ তৃষ্ণা নিয়ে বসে থাকি সমুদ্রের তীরে
তৃষ্ণায় স্নান করি ,তৃষ্ণাই পান করি রোজ
বিন্দুর বুদ্বুদে বিন্দু বিন্দু ফুরোই রোজ!

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!