মার্গে অনন্য সম্মান সুখেন্দু ঘোড়ই (সর্বোত্তম)

অনন্য সৃষ্টি সাহিত্য পরিবার

সাপ্তাহিক কবিতা প্রতিযোগিতা পর্ব – ১১২
বিষয় – আচার্য্য

উদ্ভিদ প্রাণ জগদীশচন্দ্র ঘ্রাণ

“জীব-উদ্ভিদ-পদার্থ” বিজ্ঞানী জগদীশচন্দ্র বসু তুমি
স্বদেশপ্রেমী কল্পবিজ্ঞান ধ্যানী জন্ম দিনে তোমায় নমি।
ভগবানচন্দ্র বামাসুন্দরী কোলে জন্মনিলে বাংলাদেশের রাঢ়িখালী গ্রাম
ন্যায়নিষ্ঠ দৃঢ়চেতা ছিলে অবলা বসু পত্নী নাম।
ডাকাত কাঁধে স্কুলে যাতায়াত শিশুকালের শিক্ষা ভাগে
রামচরিত্র কর্ণ বীরত্ব লক্ষ্মণ তোমার ভালো লাগে।
বনচাঁড়াল আর লজ্জাবতীর হাতের ছোঁয়ায় নুইয়ে পড়া
শৈশব কালে শিক্ষাভালে উদ্ভিদ প্রাণ দিল নাড়া।
সেন্ট জেভিয়ার্স কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় উচ্চ শিক্ষার গোড়াপত্তন
কেম্ব্রিজ লণ্ডন বিশ্ববিদ্যালয় উদ্ভিদ-পদার্থ-রসায়ন অধ্যয়ন।
জীব-জৈব-উদ্ভিদ-প্রত্নে ছাত্র সমাজের ছিলে উদ্দীপক
প্রেসিডেন্সি কলেজে হইলে পদার্থ বিদ্যার বিশেষ অধ্যাপক।
আবিষ্কার করিলে মিলিমিটার তরঙ্গ-বেতার-ক্রেসকোগ্রাফ-উদ্ভিদ প্রাণ
ব্রিটিশ সরকার স্বীকৃতি স্বরূপ “স্যার” উপাধি করল প্রদান।
সিআইই-সিএসই-নাইট ব্যাচেলর পেলে হরেক পুরষ্কার
“বসু বিজ্ঞান মন্দির” স্থাপিলে করিতে বিজ্ঞান চর্চার প্রসার।
“অব্যক্ত”-” ফিজিওলজি অফ ফটোসিন্থেসিস”রচিলে তুমি মহান
বিবিসি জরিপে শ্রেষ্ঠ বাঙালী তালিকায় পেলে সপ্তম স্থান।
মাতৃভাষায় বিজ্ঞান সাধনা-চর্চার ছিলেন পথ প্রদর্শক
ভারতীয় উপমহাদেশে পরিচিত তুমি “বিজ্ঞান চর্চার জনক”।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!