T3 শারদ সংখ্যা ২০২২ || তব অচিন্ত্য রূপ || বিশেষ সংখ্যায় জবা চৌধুরী

একটা জীবন

 

একটা জীবন শ্রাবণ ভাদ্র চোখের জলে থৈ থৈ

একটা জীবন শুকনো মরু, জলের নাগাল পায় কৈ?

 

একটা জীবন কী হারাবে ভয়ে ভাবনায় কাটায় রাত

একটা জীবন সব হারিয়ে বাড়াতে আর জানেনা হাত।

 

একটা জীবন মিথ্যেতে বাঁচে ভালো-মন্দের নেই বালাই

একটা জীবন মরবে তবু সত্যেরে করে নিয়ে ঝালাই l

 

একটা জীবন আশ্বিন এলে আকাশপানে চোখ তোলে

দুর্গামায়ের আসার আশায় ক্ষিধে তৃষ্ণা সব ভুলে।

 

একটা জীবন পথে চোখ রাখে সেই পথে মা যাবে বলে

চোখের দেখা-ই অনেক পাওনা জেনেছে সে সত্যি বলে।

 

চারদিনেতে মা চলে যায় ক্ষিধের পেটে আগুন জ্বলে

একটা জীবন ঠিক শিখে যায় বাঁচার মন্ত্র নানা ছলে।

 

খুশির শরৎ

গরম যখন ‘টা টা’ বলে শীতটা মুচকি হাসে
মা বলে ওই সময়টাতেই দুগ্গা ঠাকুর আসে !

আকাশ সাজে নীল রঙেতে সাদা মেঘেরা ভাসে
খিলখিলিয়ে শিউলি হাসে শুয়ে সবুজ ঘাসে।

ঘরে তখন মন বসে না, চলে স্বর্গ খোঁজা
কোন পথেতে আসবেন মা সহজ নয়তো বোঝা।

মহালয়ায় চন্ডীপাঠ –খুব ভোরেতে উঠি
দেখতে পাড়ার প্যান্ডেলটি— চলি গুটিগুটি।

পুজোর জামা ক’টা হলো, সবার খবর রাখি
কান পেতে রই পথ পেরিয়ে আসবে কখন ঢাকি।

ঢ্যাম কুড়া-কুর বাদ্যি মানেই মনে খুশির জাঁক
কেউ দেবো না যেতে মা’কে, বারোমাসই থাক।

এবার, কেউ দেবো না যেতে মা’কে, বারোমাসই থাক।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!