|| কালির আঁচড় পাতা ভরে কালী মেয়ে এলো ঘরে || T3 বিশেষ সংখ্যায় অমিত মজুমদার

নির্বাক আপেল চোর

আমাকে বেঁচে থাকতে দেখে মাস্ক পরা ছেড়ে দিতে পারো
আসল মুখ বেরিয়ে গেলেই মুখ খুলে ফেলা যায় না
এর জন্য আলাদা ভাষা শিখতে হয় নিখুঁত বর্ণমালায়।

স্পেশাল ক্লাসে আলফাবেট চেনানোর দিনে
তুমি আপেল থেকে চিড়িয়াখানা পর্যন্ত হেঁটে চলে যেতে
আমি একটা বাঘ দেখার অপেক্ষায় তোমার হাঁটা দেখতাম।

সেই আপেলটা এক বিখ্যাত আদম ছিঁড়ে নেবার পর
চিড়িয়াখানায় শুরু হলো ভয়ানক মহোৎসব
একদম বায়োলজি পাতায় দেখানো খাদ্য পিরামিডের মতো

জায়গার দখল নিতে এ ওর ঘাড়ে চেপে বসলো হাসতে হাসতে
আমি তখনও তাদের দেখছিলাম অসম্ভব মনযোগে
এই সুযোগে তুমি বইটাই বন্ধ করে দিলে।

বইটা অনেক পরে আমি খুঁজে পেয়েছি এক পাখির বাসায়
সে সবে ডিম পাড়তে শিখেছে। সেও ই পর্যন্ত পড়া শিখেছিলো
কিন্তু বাঘের ভয়ে আর এগোতে পারেনি।

এতদিন পর মাস্ক খুলে যে ভাষাটা হারিয়ে ফেলেছো
সেটাই এখন এই বইতে সহজ ভাবে লেখা।
কিছু বলার আগে ই সিরিজে একবার চোখ বুলিয়ে নেবে না ?

আপেলটা কে চুরি করেছিলো সেটা তুমি জানো
পাওয়ার শূন্য হয়ে গেলে সমান চিহ্নের পাশে একজনই থাকে।

Spread the love

You may also like...

error: Content is protected !!