|| শাম্ভবী সংখ্যা ২০২১ || T3 শারদ সংখ্যায় বনশ্রী

0
93
Spread the love

মাতৃত্ব

চাট্যার্জী বাড়ির একমাত্র মিষ্টি মেয়ে ঝিলিক,ভীষণ আদুরে ৷ কিশোরিবেলায় প্রেমে পড়ল দাদার বন্ধু শতদ্রুর ৷ শতদ্রু কলেজের যুবনেতা.
. ব্যবসায়ী পরিবারের ছেলেটি একমাত্র পড়াশোনা ছাড়া রাজনীতি, রক্তদান, বক্তৃতা ও সভাসমাবেশ বেশ মনোযোগ দিয়ে করে ৷ জুনিয়ার ব্যাচের হার্টথ্রব ৷কলেজ আইকন ৷ ঝিলিক মনে মনে রাগে হিংসেতে জ্বলে পোড়ে ৷ শতদ্রুকে রিয়েল হিরো মনে হয় ৷

প্রজাপতির র্নিবন্ধই বটে  ,শতদ্রুর হাত ধরে একদিন  শ্বশুরবাড়ির চৌকাঠে আলতা পায়ে  দাঁড়াল ঝিলিক ৷ বৌমার সুখ্যাতি যেন পাড়া জূড়ে

ঝিলিক ভারি খুশি ৷
বছরঘুরে ঝিলিকের মা হবার খবরে বাড়িতে খুশির হাওয়া ৷ শাশুড়ির যত্নে প্রাণ ওষ্ঠাগত ৷ তবে ঝিলিকের জরায়ুর আয়তন ছোট হওয়ায় সন্তানধারণে সমস্যা ৷ বই পড়ে আদর আহ্লাদে মাখোমাখো হয়ে দিন কাটতে লাগলো ৷
মাস সাতেক পর…
ঝিলিকের পেটে চিনচিনে ব্যথা হতেই ডাক্তার চেম্বারে নিয়ে যাওয়া হলো ৷ নাড়ি জড়িয়ে বাচ্ছা পেটের ভিতর মরে গেছে ৷

সাতদিন পর হাসপাতাল  থেকে ছাড়া পেল ঝিলিক ৷ ক্লান্ত শরীর , মনের হাহাকার নিয়ে হাতড়ে মরলো এক চিলতে স্নেহ , ভালবাসা  ৷ কিন্তু চেনা মানুষজন অদ্ভুত আচরণ করছে ৷ এই খয়রাতির দায়ভার সবটুকু তার উপর চাপিয়ে দিলো বাড়িটা ৷ শতদ্রুর সমবেদনা নয়, নিয়মিত শারীরিক অত্যাচারের নিগ্রহের শিকার ঝিলিক ৷
  উদার ভালোমানুষের মুখোশ সরে এক জলজ্যান্ত  দানব বেরিয়ে এল ৷ ষ্টেজে দাঁড়িয়ে করতালি কুড়ানো মানুষ যে কত বড় হিপোক্রাট ,ঝিলিক দিব্য টের পাচ্ছে ৷


 ঝিলিক রক্তে বড় হওয়া সন্তানকে হারিয়েছে, কারো মনে সমবেদনার লেশমাত্র নেই  ৷

অবহেলার আগুনে পুড়ে সবার অলক্ষ্যে   পোড়ো কাঠের মতো শক্ত হয়ে উঠল মেয়েটা ৷ পেরিয়ে চলল অবজ্ঞা ,ঘৃণার  চৌকাঠ ৷
 এম.বি. এ. পাশ করে একখানা ফার্মে চাকরি নিয়ে মফঃস্বল শহর মৌবনিতে পাকাপাকি বাসা বাঁধল ৷ কোলে তুলে নিল  মা বাপ হারা ছোট্ট প্রতীককে ৷

মা ছেলের খুশির সংসারে উপচে পড়ল সুখের ঘড়া ৷


Spread the love