কাব্যক্রমে আবদুল বাতেন

    0
    20
    Spread the love
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  

    ১| স্পর্ধা

    খেয়েছি কামড়
    কীটের ও কাঁটার
    তবু গোলাপ তুমি ফোটো
    সয়েছি সর্বদা
    অত্যাচার আগাছার
    তবু সৌরভ তুমি ছোটো
    মেনেছি মৌনতায়
    খরার ক্ষিপ্ত খড়গ
    তবু সবুজায়ন তুমি রটো
    অবিরাম
    ঢেলেছি অবাধে রক্ত, অশ্রু ও ঘাম
    স্বপ্ন-সুন্দর
    তোমার স্পর্ধায় আসমান কর ফুটো।

    ২| দাগ, জেগে থাকে

    দাগ, দগদগে জেগে থাক কলিজায়
    যেন চিনতে পারি
    সহজে শত্রুর মুখ।
    ব্যথা, বুনে যাও মরণ বিষ হৃদপিন্ডে
    যেন বুঝতে পারি
    দানবের চলাফেরা।
    যেন ভুলে না যাই
    ফাত্রাদেরও ফতোয়া
    অগ্ন্যুপাতের আজাব
    যেন ভুলে না যাই
    কুকুরের করতালি
    হায়েনার হর্ষধ্বনি
    যেন ভুলে না যাই
    শৃগালের ছিঁড়ে খাওয়া
    বিপ্লব বেঁচে থাক বুকে, অনন্তকাল!

    ৩| তোমার দুঃখের দরগায়

    তোমার দুঃখের দরগায় রেখেছি আমার শির ও সিজদা
    কবুল কর, মেহেরজান-
    তোমার জন্য জ্যান্ত কলিজা ছিঁড়ে যাওয়া যাতনা আমার।
    কবুল কর, হাতে করে এনেছি যে জিন্দেগি ও জয়োল্লাস
    তোমার জন্য, প্রিয়তমা-
    প্রণয় নামের দু:খকষ্ট খেদানো কিউপিডের জাদুরকাঠি।
    দিওয়ানা আমার, সমর্পণ স্বীকার না করা অব্দি, শতবর্ষেও
    তুলবোনা মস্তক
    বানে-ঝড়ে-তুফানে কি বোমে বিনাশ হলেও দেহ দেবালয়।

    Spread the love
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •