কবিতায় গোলাম রসুল

0
8
Spread the love

মেঘের রক্ষাকবচ

মেঘের রক্ষাকবচ নিয়ে আকাশে আমি একলা
আমার কাগজ ভিজে গেছে
শুধু কুয়োর ভেতরে জেগে আছে আমার রক্ত আর একটি গাছ
দু-একটি ধূসর পাতা
তার ঘুমের ছায়া পড়েছে আমার মাথায়
সুশীল সমাজ
পৃথিবী
আর নিশ্চুপ জলের অন্ধকার
দিনের গভীরে চলে গেছে আমার খড়ের তরী
রাত্রির রং মশাল
বাজি পুড়ছে আমার চোখে
আর শেষ আশ্রয় আমি নক্ষত্রদের দিকে
চেয়ে
তুমুল ঝড়
যে জীবনে আমি শুনিনি কোনো কলবর
আমার নিরবতার পাণ্ডুলিপি  একটি  পরিত্যক্ত কাঠ
ভেসে আছে অসহায়
জাহাজ ফেলে গেছে তারে
ধর্মাবতার কুয়াশা
লুঠ হচ্ছে নর নারী আর মানুষের ভিড়
বন্যার বাঁধের ওপর আগামী কালের চাঁদ
আমি আর কিছু জানি না রাত্রির
প্লাস্টার হাড় আর আমার পিরামিড

Spread the love