উৎসব সংখ্যায় কবিতা – দীপা ভাদুড়ী পাত্র কর্মকার 

    0
    4
    Spread the love

    স্বপ্নের দেশ 

    অ্যাই রনি, চল বেড়িয়ে আসি
    ঐ দূরে, ঐ যে দূরে,
    যেখানে পাখির পাখায় ভর করে মেঘ সরে সরে চলে যায়,
    আর দু চারটে কোকিল মিষ্টি সুরে তোকে ডাকে।
    আমি জানি তুই ভালোবাসিস যুদ্ধ,
    অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই,
    জীবন বলতে বুঝিস তুই প্রতিযোগিতার ইঁদুর দৌড়
    তুই মাউস ঘুরিয়ে পৃথিবী দেখতে ভালোবাসিস
    তুই ভালোবাসিস ঝুঁকি,
    তুই তো আজকের আঠারো
    মেয়ে, মাদক, খুনোখুনি তোর অবসর বিনোদন, |
    অশিষ্টাচার তোর দেবতা,
    অ্যাই রনি চলনা এই কলিযুগ ছেড়ে দুদিন হারিয়ে যাই!
    হারিয়ে যাই অন্য দেশে!
    যেখানে মায়া, মমতা, প্রেম, ভালোবাসা উঠতে বসতে জড়িয়ে ধরে।
    বৃষ্টি ঝরা রামধনু, ঝিঁঝির ডাক, দামাল হাওয়া, আর চাঁদের লুকোচুরিতে এক আলোআঁধারির খেলায়।
    চলনা আমরা ঘর-ঘর খেলি,
    দেখনা, তোর মায়ের সাথে স্কুলে যাবার প্রথম দিনটা মনে করে,
    পড়ার ফাঁকে খাতায় শেষ পাতার লেখা পড়ে,
    তুইও তো স্বপ্ন দেখিস,
    তবে কেন সেই স্বপ্নে থাকবে রক্ত, হিংসা?
    কেন তোর চলার পথে থাকবে অভিশাপ?
    তোর জীবন গাছের শেকড়ে একটু জলসেচ করে দেখ।
    স্বপ্নের নেশা, আশার ঢেউ ছাপিয়ে দিয়ে দেখ,
    হৃদয়-সাগরে প্লাবন আসবে তোর,
    আর চিতাবাঘের মতো ঝাঁপিয়ে পড়বিনা নিজেরটুকু খুবলে নেবার জন্য
    চলনা আমরা গড়ে তুলি এক সুন্দর সংসার,
    যে সুন্দর সংসার জন্ম দেবে এক সুন্দর সমাজের,
    আর সুন্দর সমাজ গড়ে তুলবে এক সোনার বাংলা,
    আর তোর মতো দশ লক্ষটা রনি খুঁজে পাবে তাদের লক্ষ্য।
    চলনা আজ সবাই হাতে হাত রাখি;
    এই নোংরা একবিংশ ছেড়ে স্বপ্ন দিয়ে গড়ে তুলি স্বপ্নের দেশ।
    চলনা এই নগ্ন আঠারোর বুকে একটা আঁচল টেনে দিই আমরা;
    দিয়ে যাই এক দগ্ধ বাংলার সুন্দর বাগান থেকে
    উত্তপ্ত দাবানলটাকে  নিভিয়ে দেওয়ার অঙ্গীকার; চল না…..

    Spread the love