কবিতায় অনিমেষ চক্রবর্তী

0
13
Spread the love

ডাক

বন্ধুরা এলে এইভাবে ডাকে
প্রেমিকারা একটু আলগা করে
বাবা শেষ কবে ডেকেছে ?
মা খেতে বলে , জ্বর হলে খোঁজ নেয়
ভাই শুধু রেখে দেয় নজরে নজরে …
যেনো জামায় কোনো পাঁক না মাখি
তীব্র বিরক্তি । স্খলন শেষে আদরের মতো।
এই ডাকাডাকি থেকে দুরে কেউ
কেনো যে ডাকেনি , এই মৃদু আফসোস টুকু
কোনোদিন হারিয়ে গেলো না

ঘুম

সারা দিন কথা হয়নি
মাংস কেটে কারা যেন দিতে চায় সুখ
জ্ঞান এলে মা’র সাথে তুমিও বলেছ
“সেরে যাবে , সামান্য অসুখ । “
সারাদিন ব্যথা নেই
এই ভালো , আধো ঘুম আধো আলোপান
মার ঘোলা চোখ , বাবার কপালের ভাঁজে
মেঘ এলে অসহ্য বাগান
এসো ঘুম , আমাকে বাঁচাও
ছেঁড়া দেহে যতটুকু পাপ-তাপ বাকি
তাকে দিও তিল আর তুলসীর মালা
একা হোক সাধের জানালা ।

কয়েদী

সাত খুন মাথায় নেওয়ায়
চোখে চোখ আর মেলানো যাবে না
এতোপাপ কখন করেছি ,
এইকথা , দর্শক জেনে গেল আজ
লজ্জা করে না আর , এতো নীচে
আয়নার আলোটুকু না থাকায়
চোখ খুলে রাখতে পেরেছি
ক্ষত হীন থাবা পেতে , অপেক্ষায়
স্থির হয়ে বসে থাকো খুনের কয়েদি
অরন্ধন শেষ হয়ে গেলে
নুন দিয়ে বিচারের ফ্যানভাত গেলো ।

Spread the love