কবিতা – রিমলী বিশ্বাস

    0
    7
    Spread the love

    বিদ্যাসাগর২০০/বিশেষ সংখ্যা

    বিদ্যাসাগর

    তোমায় নিয়ে যতই লিখি না কেন
    আমার কালির জোগান এমন নেই,
    চেতনায় শুধু এটুকু বলতে পারি
    ঈশ্বর নাম সার্থক তোমাতেই।
    জানা নেই ঠিক আর কতোটা দিত
    অলক্ষ্যে যার উপস্থিতি জানি,
    তুমিই প্রথম অক্ষর তুলে দিলে
    প্রথম আলো তোমাকেই তাই মানি।
    তোমার ব্যাখ্যা নানান ভাবে আছে
    সমাজের তুমি বদলে দিয়েছো দেখা,
    বলেছিলে শৈশব শাঁখা ভেঙে দিলে
    কিভাবে বাঁচবে ওই মেয়েটা একা!
    বর্ণপরিচয়ের সেই যে শিকড়
    এখনও বাংলা আকড়ে ধরে আছে,
    অভিধান আর ব্যাকরণ ডালাপালা
    অঙ্কুর আজও ঋণী শুধু তাঁরই কাছে!
    আঁতুড় থেকে অন্তর্জলি যাদের
    সেই মেয়েদের কথাও ভাবলে তুমি!
    কেমন করে জানতে পারলে সেদিন
    আসলে আগুন তাদেরও ছিল ভূমি!
    ঈশ্বর, তুমি সন্ধ্যা হলেই আসো,
    আর বলে যাও মনকে মুক্ত করো,
    আমি অক্ষর তোমার পুজোয় সাজাই
    আস্তিক আমি, কবিতায় হাত ধরো।

    Spread the love