শিক্ষক দিবস ও চক্ষুদান পক্ষ পালন

    0
    58
    Spread the love
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  

    উনিশের মার্চ মাস থেকে তারাপদ সাঁতরা স্মারক নিধি-র তত্ত্বাবধানে দুর্গাপুরের গোপালমাঠ গ্রামের জগুরবাঁধ প্লটের হাড়ি-বাউরি-মাঝিপাড়ার অনগ্রসর শ্রেণির যে সব ছাত্রছাত্রী ও ‘বাঁচতে চাই’ স্বনির্ভর গোষ্ঠীর মহিলারা ছবি আঁকা, পুরনো কাগজ দিয়ে মুখোশ ও কাগজের ব্যাগ তৈরি প্রভৃতি হাতের কাজ শিখছে তাদের নিয়ে নিধি-র উদ্যোগে সম্প্রতি একটি অনাড়ম্বর অনুষ্ঠানের মাধ্যমে শিশুতীর্থ বিদ্যালয়ে সর্বপল্লী রাধাকৃষ্ণনের জন্মদিন তথা ‘শিক্ষক দিবস’ পালন করা হয়। শিল্প-শিক্ষক সমীর দে, শিশুতীর্থ বিদ্যালয়ের প্রিন্সিপাল ডঃ ভারতী রায়, দুর্গাপুর ইন্দিরা প্রগতি সোসাইটির সভাপতি পূর্ণানন্দ রায় এবং তারাপদ সাঁতরা স্মারক নিধি-র সভাপতি রঘুনাথ গাঙ্গুলী প্রমুখ সংবর্ধিত হন। শিক্ষার্থীরা সমীর দে, নিধি-র সম্পাদক সোমনাথ রায় ও শিক্ষণ প্রক্রিয়ার তত্ত্বাবধায়ক চম্পা রায়কে সংবর্ধিত করে। এই উপলক্ষে কবি যশোধরা রায়চৌধুরী এবং অন্যান্য শুভানুধ্যায়ীদের প্রেরিত অঙ্কন সামগ্রী, বই, খাতা, ছাতা, জলের বোতল, পুষ্টিকর খাদ্য ও পানীয় এবং জামাকাপড় ইত্যাদি সামগ্রী শিক্ষার্থীদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। সব বয়সের শিক্ষার্থীদের আনন্দ ছিল চোখে পড়ার মত। অখিল ভারতীয় মাড়োয়ারি মহিলা সম্মেলন, মাড়োয়ারি যুব মঞ্চ ও তারাপদ সাঁতরা স্মারক নিধি-র সম্মিলিত উদ্যোগে শিশুতীর্থ বিদ্যালয়ে ‘জাতীয় চক্ষুদান পক্ষ’ পালন ও ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে রক্তদান, চক্ষুদান ও অঙ্গদান সম্বন্ধে সচেতনতা বৃদ্ধির উদ্দেশ্যে ১ম শ্রেণি থেকে ১২শ শ্রেণিতে পাঠরত ছাত্রছাত্রীদের জন্য বিভিন্ন বিভাগে ‘রক্তদান’, ‘চক্ষুদান’ ও ‘অঙ্গদান’ বিষয়ে ‘বসে আঁকো’, ‘প্রবন্ধ লিখন’ ও ‘স্লোগান লিখন’ প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয় যাতে শতাধিক ছাত্রছাত্রী অংশগ্রহণ করে। লক্ষ্মণ মুর্মু, দেবী মুর্মু, প্রীতি হাড়ি, অপর্ণা ধীবর, সিদ্ধার্থ ভান্ডারী, প্রিয়জিত মন্ডল প্রমুখ প্রতিযোগীরা পুরস্কৃত হন। এই উপলক্ষে সমস্ত প্রতিযোগীদের হাতে আঁকার সরঞ্জাম, জামাকাপড়, টিফিন ও ফলের রস তুলে দেওয়া হয়। ‘রক্তদান’, ‘চক্ষুদান’ ও ‘অঙ্গদান’ বিষয়ে প্রতিযোগীদের বিস্তারিত ধারণা দেন ‘নিধি’-র সম্পাদক সোমনাথ রায়। অনুষ্ঠানে অখিল ভারতীয় মাড়োয়ারি মহিলা সম্মেলনের পক্ষ থেকে সোমনাথ রায়, চম্পা রায় ও সমীর দে-কে সংবর্ধিত করা হয়। প্রতিযোগীদের উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মত। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন অভিষেক রায়, অগ্রণী হাড়ি, সৌরদীপ মুখোপাধ্যায় ও তুষারকান্তি গলুই।


    Spread the love
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •  
    •