সাতে পাঁচে কবিতায় শ্রদ্ধা চক্রবর্তী 

    0
    7
    Spread the love

    পুসি আর আমি

    ঝগড়া থেকে সেদিন কতগুলো ঝালিক জোট বেঁধেছিল
    প্রিন্সেপ ঘাটের পিলার গুলো এখনো সদ্য ভিজে
    তোমার ফেলে আসা সাতটা বছর আর ক্ষত বিক্ষত আমার বর্তমান কেমন যেন জড়িয়ে গেল…
    চায়নি কখনো ছেড়ে দিতে ছুড়ে ফেলতে
    তবুও ঐ যে অকারনেই আমি এগিয়ে গেছি অনিশ্চয়তার দিকে…
    বৃষ্টি হল
    কত্তো হাওয়া হলো সেদিন
    গাছের পাতা ভিজে একসা
    চুইয়ে পড়ছে আনন্দ…
    এগিয়ে আসছে ভবিষ্যত
    তুমি বলো আমায় নিয়ে কবিতা লেখো
    আমি হারিয়ে যাই জানোতো
    শুধু তোমাকে ভালোবাসিনা
    তোমার সবটাকে ভালোবাসি
    সেই
    সকালের ছল ছলে লাল চোখটা আমাকে বড্ড কষ্ট দেয়
    দূরে থাকতে খুব কষ্ট দেয়
    কিন্তু আমাদের মাঝে বার বার চলে আসে আমাদের সরল স্মৃতিরা
    কিন্তু তুমি আমি যতটাই ভিন্ন ততটাই অভিন্ন
    পুসি কে আমি হিংসে করি
    তোমার লোমশ বুকটা তো শুধু আমার
    আমারো ইচ্ছে হয় খামচে দিতে
    চাই
    তুমিও অস্থির হও
    ঠিক যেমনটা সেদিন রাতে হয়েছিলে মা হারা
    পুসিকে নিয়ে…
    আসলে প্রত্যেকের ভিতরে ঠিক খাঁচকাটা বুকটার ভিতর একটা ছানা লুকিয়ে থাকে
    সময় হতে হতে ঢাকা পরে যায় তারা
    তাই প্রত্যেক মেয়ের চাই বাবার মতো একজন প্রেমিক নামক পুরুষের…

    Spread the love