পম্পা দেবের থিয়েটার রিভিউ

0
11
Spread the love

অনিশ্চিত-কে ভালবাসো

‘জীবন যেরকম তাকে সেভাবে দেখোনা , জীবন যেরকম হতে পারে , তাকে সেইভাবে দেখো’
ডন কিহোতে বলছেন একথা। লা মাঞ্চার ডন কিহোতে । পাগলরাই পারে পৃথিবীকে অন্য চোখে দেখতে যা তথাকথিত সুস্থ নিরাপদ দূরত্বে থাকা সাধারণ মানুষের চোখে ধরা দেয়না। তাই ডন কিহোতে যা দেখেন তা অন্যরা দেখতে পান না । বেড়াল যেমন রুমাল হয়ে যায়। ম্যাজিক । ডন আসলে ম্যাজিসিয়ান। তাইতো আলডোনজা হয়ে ওঠে মহীয়সী নারী , দুলসিনিয়া।
ডন কিহোতে মরে গেলেও সার পান্ঞ্চের মধ্যে দিয়ে বেঁচে থাকে। যুগ যুগ ধরে চলে তার অভিযাত্রা ।
সারভান্তেস যেমন বলতে চেয়েছেন কীভাবে অসম্ভব কে সম্ভব করা যায় , যা নয় তা হয় । বিখ্যাত নাট্যকার, কবি , অভিনেতা শুভময় দত্ত’কে  অ্যারেস্ট করে পুলিশ,  রাষ্ট্র বিরোধী কথা বলার জন্য, জেল কাস্টডিতেই বিচার চলাকালীন নাটকের মধ্যেই নাটকের শুরু। অন্যান্য বন্দিদের নিয়ে নাটক অভিনীত হতে থাকে। শুভময় সেখানে হয়ে ওঠেন ‘ম্যাড নাইট’ ডন কুইক্সোট’ …আমরা জানি মিড নাইট ( mid knight ) দের কথা  । সারভান্তেস যাকে এঁকেছেন , সেই ডন কিহোতে জেলের মধ্যেই সীমাকে অসীম করে তোলেন। অসামান্য । চেতনার এই উপস্থাপনা অসাধারণ । অপেরা ধর্মী চমৎকারীত্বে ভরপুর এই নাটকের কুশীলবদের সকলকে বাহবা। অন স্টেজ ব্যাক স্টেজ , টেকনিক্যাল টিম সক্কলকে। স্যার অরুণ মুখোপাধ্যায়ের অভিনয় একটি উজ্জ্বল সংযোজন । দুলসেনিয়া কী দারুণ । নির্দেশক সুজন মুখোপাধ্যায়কে কুর্নিশ এমন মন্ঞ্চায়নের জন্য । সঙ্গীত, কোরিওগ্রাফি, পোশাক, সেট অসাধারণ ।
ডন কিহোতে সুমন মুখোপাধ্যায়কে শ্রদ্ধা । কী অসামান্য অভিনয়। মোনালিসা, দেবনাথ খুউব ভাল ।
এইসব ছাপিয়ে যেখানে দর্শক হৃদয় ছুঁয়ে যায় সেই যা কিছু অনিশ্চিত তাকেই ভালবাসো। তাহলেই নিশ্চিত হতে পারবে। ‘ডন তাকে ভাল লাগে’। ভাল লাগবেই ।
মন্ঞ্চে একে একে সত্যি হয়ে উঠেছে সান্ঞ্চো পানজা , দুলসিনিয়া, আলোনসো কুইজানো থেকে মধ্যযুগীয় নাইট ডন কিহোতে । এমনকি প্রত্যেকে  চরিত্র থেকে চরিত্র হয়ে ওঠে ঐ আদালতে নাটকের মধ্যে দিয়ে নাটকের মধ্যে । সমসাময়িক রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাস, ফ্যাসিবাদী অভিঘাত ধরা পড়ে । যেখানে বাকস্বাধীনতায় রাষ্ট্রের হস্তক্ষেপ প্রতিমুহূর্তে জারি থাকে।  এখানেই নির্দেশকের মুন্সীয়ানা।     অসামান্য একটি নাটক ‘ডন , তাকে ভাল লাগে ‘।.


Spread the love