Guftagu -তে- বর্ণ চক্রবর্তী

0
7
সঙ্গীত শিল্পী হিসেবে ইতিমধ্যেই দু বাংলায় বেশ জনপ্রিয় তাঁর নাম। রবীন্দ্র সঙ্গীতকে তিনি এক নতুনতর পর্যায়ে পৌঁছে দিয়েছেন। টেকটাচ প্রতিনিধির সঙ্গে কথোপকথনে এবারের অতিথি বর্ণ চক্রবর্তী।
Spread the love

টেকটাচ প্রতিনিধিঃ আপনার  গান বাজনার শখ কবে থেকে?

বর্ণ চক্রবর্তী – গান ভালোবাসতে শুরু করেছি ২০০৯ সাল থেকে। কিন্তু গান শিখেছি ছোট বেলা থেকে। বাবা তবলা বাদক ছিলেন, তার হাত ধরেই পথচলা।

প্রতিনিধিঃ  আসলে গানের শুরুটা কীভাবে? এক্ষেত্রে পরিবারের সম্মতি ছিল কি সবসময়?

বর্ণ চক্রবর্তী – গানের শুরু ছোটবেলা থেকেই। পরিবারের সন্মতি ছিলো ক্লাসিকাল গান করার জন্য। আধুনিক বা ব্যান্ড ঘরানার গানের জন্য নয়।

প্রতিনিধিঃ  গানের জগতে আসার লড়াইটা যদি একটু বলেন?

বর্ণ চক্রবর্তী – আমি লড়াই করিনি কখনো, আমি শুধু শেখার চেষ্টায় ছিলাম, কষ্ট হয়েছে কিন্তু হাল ছাড়িনি।

প্রতিনিধিঃ আপনার প্রথম অ্যালবাম কবে রিলিজ হয়েছিল? এ পর্যন্ত ক’টা অ্যালবাম রিলিজ হয়েছে?

বর্ণ চক্রবর্তী – প্রথম একটি ডুয়েট অ্যালবাম করেছিলাম ২০১১ সালে। তারপর বেশ কিছু মিক্স অ্যালবাম করেছি। সবমিলে এখন ১৮ টি অ্যালবাম।

প্রতিনিধিঃ  গান ছাড়াও আপনার আর কি করতে ভালো লাগে ?

বর্ণ চক্রবর্তী – গান ছাড়া ভিজুয়াল ডিরেকশন, সিনেমাটোগ্রাফি, ভিডিও এডিটিং করতে ভালো লাগে।

প্রতিনিধিঃ  আপনার বেশির ভাগ গান রাবীন্দ্রিক, আপনার কণ্ঠে “কেন মেঘ আসে হৃদয় আকাশে’’ বেশ চর্চিত ও প্রশংসিত। রবীন্দ্র সংগীতের এই যে আলাদা একটা মিশ্রণ। এই নিয়ে কি বলবেন?

বর্ণ চক্রবর্তী – আমার সংগীত পরিচালনা করতে খুব ভালো লাগে, ‘মাঝে মাঝে তব দেখা পাই’ গানটা আমার খুব ভালো লাগতো, কিন্তু চ্যালেঞ্জ ছিলো আধুনিক সংগীতায়োজন, আধুনিকতা করতে গিয়ে গানের ভাবকে আমি পরিবর্তন করিনি। হয়তো সেটাই সবার ভালো লেগেছে।

প্রতিনিধিঃ  আপনার কাছে বর্তমান বাংলাদেশের মিউজিক ইন্ডাস্ট্রির অবস্থা এখন কেমন?

বর্ণ চক্রবর্তী – বর্তমান মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি খুব গোলমেলে, সবাই ভিউজ ওঠানোর জন্য অসুস্থ কম্পিটিশনে নেমেছে। পরিবর্তন আমি আশা করি।

প্রতিনিধিঃ  একজন শিল্পী হিসেবে এবং সংগীত পরিচালক হিসেবে নতুনদের জন্য কি বলবেন?

বর্ণ চক্রবর্তী – নতুনদের বলতে চাই, সাময়িক পপুলারিটির জন্য গান করলে শিল্পী হতে পারবেন না। শিল্পী হতে হলে প্রচুর জ্ঞান অর্জন করতে হয়, সেই ধৈর্য রেখেই গানকে ভালোবাসতে হবে।

প্রতিনিধিঃ  একটু অন্য প্রসঙ্গে যাচ্ছি, সম্প্রতি বাংলাদেশী গায়ক নোবেল-এর মন্তব্যে বেশ শোরগোল পড়ে গিয়েছিল। এ বিষয়ে আপনার কি বক্তব্য?

বর্ণ চক্রবর্তী – নোবেল এখনো শিল্পী হয়ে ওঠেনি, ও এখনো একজন এন্টারটেইনার, শিল্পী হতে হলে বিনয়ী হতে হয়, আশাকরি সেই শিক্ষা নোবেল শিখে নেবে । তবেই সে শিল্পী হবে।

প্রতিনিধিঃ  গান নিয়ে আপনার বিভিন্ন এক্সপেরিমেন্ট আছে। নতুন কি গান আসছে?

বর্ণ চক্রবর্তী – নতুন বেশ কিছু মৌলিক গান আসছে, পাশাপাশি সোলো অ্যালবামের কাজ করছি।

প্রতিনিধিঃ  পুজোর গান নিয়ে দু-বাংলাতেই বেশ উন্মাদনা আছে সবসময়। সেরকম কিছু নিয়ে ভেবেছেন কি?

বর্ণ চক্রবর্তী – দেখি পুজোতে অ্যালবামটা রিলিজ করতে পারি কিনা, সেটাই হবে আমার পক্ষ থেকে পুজোর উপহার। চেষ্টা করছি।


Spread the love