সংবাদঃ চন্দ্রযান-২

    0
    12
    Spread the love

    গত ২২ জুলাই ‘১৯, শ্রাবণ মাসের দ্বিতীয় সোমবারে চন্দ্র অভিযানে পাড়ি দেয় চন্দ্রযান-২। বেঙ্গালুরু থেকে এই যাত্রাপথের উপর তীক্ষ্ণদৃষ্টি রেখে চলেছেন, “ইসরো টেলিমেট্রি, ট্রেকিং অ্যান্ড কমান্ড নেটওয়ার্ক”-এর ‘ মিশন অপারেশন কমপ্লেক্স’। সর্বদা সাহায্যের হাত এগিয়ে রেখেছে, “ইন্ডিয়ান ডিপ স্পেস নেটওয়ার্ক”।
    ২০/৮/১৯ ইসরোর প্রধান শিবন জানিয়েছেন চন্দ্রযান-২ একের পর এক পরীক্ষায় সফল হয়ে আগামী ৭সেপ্টেম্বর চূড়ান্ত পরীক্ষার মুখোমুখি হতে চলেছে। সেদিনই হবে ‘বিক্রম’-এর সফট ল্যান্ডিং।ভারত প্রথম বার এই কাজে হাত দিয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই ইসরোর বিজ্ঞানীরা সতর্ক। এই সফট ল্যান্ডিং-কে নিরাপদ করার জন্য তাঁদের চিন্তার শেষ নেই। তবে গত ২০ আগস্ট ভারতীয় সময় সকাল ৯টা ২মিনিট থেকে ২৮ মিনিট ৫৮ সেকেন্ডে বিজ্ঞানীরা চন্দ্রযান-২ কে চাঁদের কক্ষপথে নিখুঁত ভাবে পৌঁছাতে পেরেছেন। এরপর ধাপে ধাপে কক্ষপথকে কমানো হবে।এর মাঝে আবার ২সেপ্টেম্বর চন্দ্রযান-২এর মডিউল দুভাগ করার কাজ হবে।ল্যান্ডার ‘বিক্রম’কে অরবিটার থেকে আলাদা করতে হবে।এখন ইসরোর বিজ্ঞানীদের কাছে এক মস্ত চ্যালেঞ্জ বিক্রমকে অক্ষত অবস্থায় চাঁদে নামানো। দেখা যাক,আমাদের সকলের শুভেচ্ছা থাক আগামী ৭ সেপ্টেম্বর,’১৯এর জন্য।সেদিনই বিক্রমের “সফট ল্যান্ডিং”। দেশ-বিদেশের সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে বিজ্ঞানীরাও তাকিয়ে সেই বিশেষ দিনটির দিকে।


    Spread the love